সোমবার   ২৫ অক্টোবর ২০২১   কার্তিক ৯ ১৪২৮   ১৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

প্রবাস খবর
সর্বশেষ:
আপনি কি আপনার প্রবাস জীবনের অভিজ্ঞতা সম্পর্কে লিখতে চান? লেখা [email protected] এ পাঠাতে পারেন।
২৬

মালয়েশিয়ায় লকডাউন শিথিলের পর বাড়ছে মৃত্যের সংখ্যা

প্রকাশিত: ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১  

করোনা সংক্রমণের ঊর্ধ্বগতির মধ্যেই মালয়েশিয়ায় লকডাউন শিথিলের পর বাড়ছে মৃত্যের সংখ্যা। মহামারি করোনাভাইরাসে দেশটিতে শনিবার (২৫ আগস্ট) ২৪ ঘণ্টায় সারা দেশে নতুন করে মারা গেছেন আরও ২২৮ জন। এ নিয়ে এখন পর্যন্ত দেশটিতে মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২৫ হাজার ১৫৯ জনে।
এদিকে জানা গেছে,  নতুন করে করোনা শনাক্ত হয়েছে আরও ১৩ হাজার ৮৯৯ জনের দেহে। এ নিয়ে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়াল ২১ লাখ ৮৫ হাজার ১৩১ জনে।স্থানীয় সময় বুধবার (২৬ সেপ্টেম্বর) দেশটির স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।
উক্ত বিজ্ঞপ্তিতে আরও জানানো হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ১৮ হাজার ৭৪ জন। এ নিয়ে মোট সুস্থ হয়েছেন ১৯ লাখ ৬৮ হাজার ৫৩৮ জন
এর আগে মঙ্গলবার (২৫ আগস্ট) স্বাস্থ্য অধিদপ্তর জানায়, আগের ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে ২৫০ জনের মৃত্যু হয়েছে। এছাড়া করোনা শনাক্ত হয় ১৪ হাজার ৫৪৪ জনের দেহে।
যদিও দেশটিতে প্রাপ্তবয়স্ক জনসংখ্যার মধ্যে এই পর্যন্ত প্রথম ডোজের ভ্যাকসিন নিয়েছেন ৯৩ দশমিক ৭ শতাংশ মানুষ এবং পূর্ণ ডোজের ভ্যাকসিন নেওয়া সম্পন্ন করেছেন ৮৩ দশমিক ১ শতাংশ মানুষ।
প্রসঙ্গত, দেশটিতে প্রাপ্তবয়স্ক জনসংখ্যার ৯০ শতাংশ টিকা দেওয়া শেষ হলে স্বাস্থ্যবিধি মেনে পর্যটকরা যেতে পারবেন দেশটির বিভিন্ন রাজ্যের বিনোদনকেন্দ্রগুলোতে।
অন্যদিকে পর্যটন কেন্দ্র খোলার সার্বিক প্রস্তুতি নিচ্ছেন হোটেল মোটেল ব্যবসায়ীরা। তবে পর্যটকদের অবশ্যই স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে বলে জানিয়েছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী ইসমাইল সাবরি ইয়াকোব।
এছাড়া ফাইজার, অ্যাস্ট্রাজেনেকা বা সিনোভ্যাক ভ্যাকসিনের দ্বিতীয় ডোজ টিকা পাওয়ার ১৪ দিন পর এই শিথিলতা প্রযোজ্য হবে। অন্যদিকে জনসন অ্যান্ড জনসন বা ক্যানসিনো ভ্যাকসিন নেওয়ার ২৮ দিন পরে লোকজন এর আওতায় আসবে।
তবে, এক রাজ্য থেকে অন্য রাজ্যে প্রবেশের সময় তাদের অবশ্যই ডিজিটাল কোভিড-১৯ টিকাকরণের সার্টিফিকেট এনফোর্সমেন্ট অফিসারদের দেখাতে হবে।
অন্যদিকে, করোনা সংক্রমণের ঊর্ধ্বগতির মাঝেও সংশ্লিষ্টরা আশা করছেন, গোটা বিশ্বের সাথে মালয়েশিয়াও খুব শিগগিরই মুক্তি পাবে করোনাভাইরাস থেকে। পর্যটন কেন্দ্রগুলো আবারও পর্যটকে মুখরিত হবে। আলোর ঝলকানিতে প্রাণ ফিরে পাবে শহরগুলো। এর মধ্য দিয়েই আগের রূপে ফিরবে স্বপ্নের দেশ মালয়েশিয়া।

প্রবাসখবর.কম/বি

প্রবাস খবর
এই বিভাগের আরো খবর