শুক্রবার   ০১ জুলাই ২০২২   আষাঢ় ১৭ ১৪২৯   ০২ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৩

প্রবাস খবর
সর্বশেষ:
আপনি কি আপনার প্রবাস জীবনের অভিজ্ঞতা সম্পর্কে লিখতে চান? লেখা [email protected] এ পাঠাতে পারেন।
৬৭

বেগমগঞ্জে প্রবাসী হত্যায় চারজনের যাবজ্জীবন

প্রকাশিত: ১৬ জুন ২০২২  

গতকাল বুধবার (১৫ জুন) দুপুরে নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ উপজেলার ছয়ানী ইউনিয়নে সৌদি প্রবাসী মহি উদ্দিন হত্যা মামলায় চারজনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ডাদেশ দিয়েছে আদালত। এ মামলায় এক আসামি কারাগারে থাকলেও অপর তিন আসামি এখনও পলাতক রয়েছেন।
নোয়াখালীর অতিরিক্ত জেলা জজ প্রথম আদালতের বিচারক সৈয়দ ফখরুদ্দিন এ রায় ঘোষণা করেন।
দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন- বেগমগঞ্জ উপজেলার ছয়ানী ইউনিয়নের বেপারী বাড়ির আবুল কালামের ছেলে মো. মিলন (৩৫) ও পলাশ প্রকাশ জাম্বু (৩৫) এবং তাদের ভাগনে একই গ্রামের কাজী বাড়ির মো. আলীর ছেলে শেখ ফরিদ (২৭) ও আব্দুল মান্নান (২৮)।
এদিকে আদালত সূত্রে জানা গেছে, ২০১৫ সালের ২৮ ফেব্রুয়ারি ছয়ানী ইউনিয়নের বেপারী বাড়ির আবুল বাশার ও পলাশ জাম্বুদের সঙ্গে বাড়িতে পাকা ঘর নির্মাণকে কেন্দ্র করে বিরোধের সৃষ্টি হয়। ঘটনায় প্রশাসন থেকে বিরোধপূর্ণ জায়গায় ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছিল। পরবর্তীতে পলাশ ও তার ভাগনেরা বাশারের নির্মাণাধীন ভবনের বেইজের মাটি ভরাট করতে শুরু করে। এ সময় নির্মাণাধীন ভবনের মালিক বাশার বাধা দিলে মিলন, জাম্বু, শেখ ফরিদ ও মান্নাসহ বেশ কয়েকজন বাশার ও তার ছোট ভাই সৌদি প্রবাসী মহি উদ্দিনকে লোহার শাবল দিয়ে পিটিয়ে জখম করে। এতে মহি উদ্দিন মাথায় আঘাত প্রাপ্ত হয়ে মারা যান। এ ঘটনায় ২০১৫ সালের পহেলা মার্চ আবুল বাশার বাদী হয়ে ১৪ জনকে আসামি করে বেগমগঞ্জ থানায় একটি হত্যা মামলা করেন। পরে পুলিশ অভিযান চালিয়ে পলাশ জাব্বুকে গ্রেফতার করে।
এ বিষয়ে বাদীপক্ষের আইনজীবী আব্দুর রহমান টিংকু বলেন, আসামি পলাশ জাম্বুর উপস্থিতিতে আদালতে শুনানি হয়। শুনানি শেষে বিচারক হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় দায়ের করা মামলায় জাম্বুসহ ৪ আসামিকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেন। সাজাপ্রাপ্ত অপর তিন আসামি পলাতক রয়েছেন। আসামি পলাশ জাম্বুকে নোয়াখালী জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

প্রবাসখবর.কম/বি
 

প্রবাস খবর
এই বিভাগের আরো খবর