সোমবার   ২৬ জুলাই ২০২১   শ্রাবণ ১১ ১৪২৮   ১৬ জ্বিলহজ্জ ১৪৪২

প্রবাস খবর
সর্বশেষ:
আপনি কি আপনার প্রবাস জীবনের অভিজ্ঞতা সম্পর্কে লিখতে চান? লেখা [email protected] এ পাঠাতে পারেন।
১৩

বায়তুল মোকাররমে ঈদ জামাতে করোনা মুক্তির বিশেষ দোয়া

প্রকাশিত: ২১ জুলাই ২০২১  

আজ বুধবার (২১ জুলাই) সারাদেশে পালিত হচ্ছে পবিত্র ঈদুল আযহা। আর ঈদ উপলক্ষে জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমে ঈদের জামাতে করোনা মহামারি থেকে বিশ্ববাসীর মুক্তি ও দেশ, জাতি এবং বিশ্ব মুসলিম উম্মাহর কল্যাণ কামনা করে বিশেষ দোয়া ও মোনাজাত করা হয়েছে। 
সকাল ৭টায় জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমে ঈদুল আজহার প্রধান জামাত অনুষ্ঠিত হয়।
বায়তুল মোকাররমে ঈদের প্রথম জামাতে ইমামতি করেন বায়তুল মোকাররমেরই সিনিয়র পেশ ইমাম হাফেজ মুফতি মো. মিজানুর রহমান। মুকাব্বির ছিলেন মসজিদের মুয়াজ্জিন মো. আতাউর রহমান।
স্বাস্থ্যবিধি মেনে মুসল্লিরা অংশ নেন ঈদের নামাজে। প্রার্থনা, আবারও স্বাভাবিক জীবনের ছন্দে রঙ্গিন হয়ে উঠবে ঈদের দিন। দেশের জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমে ঈদ নামাজে অংশ নিতে মানুষের লম্বা এ লাইন বলে দিচ্ছে, মহামারি থামাতে পারেনি ঈদের উচ্ছ্বাস।
তবে ছিল স্বাস্থ্যবিধি মানার কড়াকড়ি। মাস্ক ছাড়া প্রবেশ করতে দেওয়া হয়নি কাউকেই। বেশিরভাগ মানুষ স্বাস্থ্যবিধি মেনেই অংশ নিয়েছেন নামাজে। যারা মাস্ক আনেননি, আইনশৃঙ্খলা বাহিনী থেকে তাদের সরবরাহ করেছে।
সকাল ৭টার প্রথম জামাতে মানুষের অংশগ্রহণ ছিল চোখে পড়ার মতো। দ্রুত নামাজ শেষ করে পশু কোরবানিতে যোগ দিতে সবার জামাতগুলোতে ভিড় থাকলেও বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে কমে আসে। নিরুৎসাহিত করা হলেও শিশু ও বৃদ্ধদের অংশগ্রহণ ছিল লক্ষ্যণীয় ।
এর আগে করোনাকালে ৩টি ঈদের মতো এবারও রাজধানীতে উন্মুক্ত স্থানে ঈদ জামাত হয়নি। তবে ২৩ জুলাই থেকে শুরু হতে যাওয়া লকডাউনের কারণে বাড়ি না গিয়ে অনেকে এবার ঢাকায় পালন করছেন ঈদ।
নামাজ শেষে মোনাজাতে গুরুত্ব পায় মহামারি করোনা মুক্তির প্রার্থনা। করোনাকালেও ঈদ জামাতে অংশ নিতে পেরে স্বস্তি প্রকাশ করেন মুসল্লিরা।
এদিকে রাজধানীর মতো সারাদেশে ত্যাগের মহিমায় উদযাপিত হচ্ছে ঈদুল আজহা। স্বাস্থ্যবিধি মেনে ঈদের জামাতে অংশ নেন মুসল্লিরা। সৃষ্টিকর্তার সন্তুষ্টি লাভের আশায় স্বাস্থ্যবিধি মেনে সারাদেশে আদায় করা হয় ঈদ জামাত।
এদিকে বুধবার সকাল সাড়ে সাতটায় চট্টগ্রামের জমিয়াতুল ফালাহ জামে মসজিদে হয় ঈদের প্রথম জামাত। এছাড়া নগরীর ৪১টি ওয়ার্ডে কাউন্সিলরের তত্ত্বাবধানে ঈদ জামাত অনুষ্ঠিত হয়।
এছাড়া সিলেটের ঐতিহ্যবাহী শাহী ঈদগাহ ময়দানে প্রধান জামাত অনুষ্ঠিত হয়। নামাজ শেষে দেশ ও জাতির শান্তি ও সমৃদ্ধি কামনা করে মোনাজাত করেন মুসল্লিরা। ময়মনসিংহ শহরের আঞ্জুমান ঈদগাহ মাঠ ছাড়িয়ে যায় মুসল্লিদের দীর্ঘ সারি। স্বাস্থ্যবিধি মানাতে প্রবেশ পথগুলোতে আর্চওয়ে বসায় পুলিশ।
করোনা পরিস্থিতিতে এ বছরও রাজশাহীতে বেশিরভাগ ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হয় মসজিদে। স্বাস্থ্য সুরক্ষা নিশ্চিতে এবং করোনা প্রতিরোধে মসজিদের গেটে বসানো হয় স্বাস্থ্য সুরক্ষা বুথ। সেখান থেকে প্রত্যেক মুসল্লিকে মাস্ক ও হ্যান্ড স্যানিটাইজার দেওয়া হয়। 
এছাড়া বরিশাল ও রংপুরে উৎসবমুখর পরিবেশে ঈদুল আজহার নামাজ আদায় করেন সব বয়সীরা।

প্রবাসখবর.কম/বি

প্রবাস খবর
এই বিভাগের আরো খবর