সোমবার   ১২ এপ্রিল ২০২১   চৈত্র ২৯ ১৪২৭   ২৯ শা'বান ১৪৪২

প্রবাস খবর
সর্বশেষ:
আপনি কি আপনার প্রবাস জীবনের অভিজ্ঞতা সম্পর্কে লিখতে চান? লেখা [email protected] এ পাঠাতে পারেন।
৭৭

প্রবাসীদের মালয়েশিয়ায় ফেরা নির্ভর করছে নিয়োগকর্তার ওপর

প্রকাশিত: ৪ এপ্রিল ২০২১  

করোনা ভাইরাসের কারণে বৃহস্পতিবার (১ এপ্রিল) থেকে ১৪ এপ্রিল পর্যন্ত মালয়েশিয়ায় করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলায় দুই সপ্তাহের জন্য আবারো কন্ডিশনাল মুভমেন্ট কন্ট্রোল অর্ডার (সিএমসিও) চলাচলে নিষেধাজ্ঞার সময় বাড়ানো হয়।
এমন পরিস্থিতে শঙ্কায় রয়েছেন প্রবাসীরা।এ ছাড়া আন্তর্জাতিক ভ্রমণের ওপরও আগের মতো নিষেধাজ্ঞা বহাল রয়েছে। চলাচলে বিধিনিষেধের কারণে বিশেষ করে (প্রবাসী বাংলাদেশিরা) অন্যান্য রাজ্যে যাদের ব্যবসা রয়েছে তারা লোকসানে রয়েছেন। বিধিনিষেধের মধ্যেও সরকারি ও বেসরকারি সেক্টরগুলো শতভাগ চালু করেছে মালয়েশিয়ার সরকার।
জানা গেছে, করোনার সময়ে যারা বাংলাদেশসহ অন্যান্য বিদেশি শ্রমিকরা নিজ দেশে গিয়ে আটকা পড়েছেন সেসব কর্মীরা দেশটিতে প্রবেশ করতে চাইলে তাদের নিয়োগকর্তারা অভিবাসন বিভাগে মাই ট্রাভেলপাস নামে আবেদন করতে পারবেন। সেই প্রক্রিয়াতে আবেদন করে তারা দেশটির কাজে ফিরে আসতে পারবেন। দেখা গেছে অনেকেই এ প্রক্রিয়াতে দেশটিতে প্রবেশ করেছেন।  
এর আগে মালয়েশিয়ায় কন্ডিশনাল মুভমেন্ট কন্ট্রোল অর্ডার ঘোষণা করা হয়েছিল, যা ১৯ মার্চ থেকে ৩১ মার্চ শেষ হওয়ার কথা ছিল। সংক্রমণ রোধে শর্তসাপেক্ষে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের পরামর্শ অনুযায়ী ১ এপ্রিল থেকে থেকে ১৪ এপ্রিল পর্যন্ত দেশটির সেলাঙ্গর, জহুর, পিনেং, কেলান্তান রাজ্য এবং রাজধানী কুয়ালালামপুরে কন্ডিশনাল মুভমেন্ট কন্ট্রোল অর্ডার (সিএমসিও) ঘোষণা করা হয়। একই সঙ্গে মালয়েশিয়ার সারাওয়াক প্রদেশে ৩০ মার্চ থেকে ১২ এপ্রিল পর্যন্ত কন্ডিশনাল মুভমেন্ট কন্ট্রোল অর্ডার (সিএমসিও) এর আওতায় থাকবে।
প্রসঙ্গত, গত ২৪ ঘণ্টায় মালয়েশিয়ায় করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ১৪৮২ জন, মারা গেছেন ৭ জন।   

প্রবাসখবর.কম/বি
 

প্রবাস খবর
এই বিভাগের আরো খবর