রোববার   ০৫ ডিসেম্বর ২০২১   অগ্রাহায়ণ ২০ ১৪২৮   ২৯ রবিউস সানি ১৪৪৩

প্রবাস খবর
সর্বশেষ:
আপনি কি আপনার প্রবাস জীবনের অভিজ্ঞতা সম্পর্কে লিখতে চান? লেখা [email protected] এ পাঠাতে পারেন।
৪৫

নিউইয়র্ক সিটি নির্বাচনে ইতিহাস গড়লেন বাংলাদেশি শাহানা হানিফ

প্রকাশিত: ৪ নভেম্বর ২০২১  

যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্ক সিটি কাউন্সিল নির্বাচনে জিতে ইতিহাস গড়লেন বাংলাদেশি-আমেরিকান শাহানা হানিফ। সম্প্রতি নিউইয়র্ক সিটি কাউন্সিলের সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন প্রথমবারের মতো একজন মুসলিম নারী এবং একই সঙ্গে এশীয় বংশোদ্ভূত।
২ নভেম্বর (মঙ্গলবার) অনুষ্ঠিত নিউইয়র্ক সিটি নির্বাচনে ব্রুকলিনে বাংলাদেশিসহ স্প্যানিশ, জুইশ অধ্যুষিত কেনসিংটন, পার্ক স্লোপ এবং সেন্ট্রাল ব্রুকলিন নিয়ে গঠিত কাউন্সিল ডিসট্রিক্ট-৩৯ থেকে জয়ী হন শাহানা হানিফ।
বোর্ড অব ইলেকশন অফিস জানায়, মোট ভোটের ৮৯ শতাংশ পেয়েছেন শাহানা হানিফ। তার একমাত্র প্রতিদ্বন্দ্বী কনজারভেটিভ পার্টির উইনকোফ পেয়েছেন মাত্র ৮ শতাংশ ভোট।
জানা গেছে, বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত শাহানা হানিফের পৈত্রিক নিবাস চট্টগ্রামের ফটিকছড়ি উপজেলায়। যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের অন্যতম উপদেষ্টা মোহাম্মদ হানিফের জ্যেষ্ঠ কন্যা শাহানা হানিফ শাহানা হানিফ দীর্ঘ দিন ধরে ব্রুকলিনে রাজনীতিতে সক্রিয়। মাঠের রাজনীতিতে তিনি প্রগতিশীল যুব প্রজন্মের প্রতিনিধি হিসেবে পরিচিত।
মঙ্গলবার রাতে এক বিবৃতিতে শাহানা বলেন, আমি খুবই খুশি এবং গর্বিত নিউইয়র্ক সিটির ৫ শতাধিক বছরের ইতিহাসে প্রথম মুসলিম সদস্য হিসেবে এবং ডিসট্রিক্ট ৩৯-এ প্রথম নারী হিসেবে জয়ী হতে পেরে।
তিনি আরও বলেন, আমরা ইতোমধ্যে বর্ণ-বিদ্বেষমূলক কর্মকাণ্ডের বিরুদ্ধে মোর্চা গঠন করেছি, ধর্ম এবং জাতিগত সম্প্রীতির বন্ধনকে সুসংহত করার পথে আছি। আমরা এমন পরিবেশ তৈরি করতে চাই যেখানে দুর্বলকে রক্ষা করবে, ন্যায়সঙ্গত শিক্ষা নিশ্চিত করবে, জলবায়ু সংকট নিরসনে বিনিয়োগ করবে এবং অভিবাসী প্রতিবেশীরা স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করবে।
তিনি বলেন, নির্বাচন শেষে নীরব হয়ে থাকলে চলবে না। সবাইকে সজাগ ও সরব থাকতে হবে নিজ নিজ অধিকারের প্রশ্নে।
নিউইয়র্কে বাংলাদেশিদের তৃতীয় প্রজন্মের অভিবাসন চলমান। কিন্তু, এতদিন এখানে কোনো বাংলাদেশি জনপ্রতিনিধি নির্বাচিত হতে পারেননি। গত ২ দশকের বেশি সময় ধরে চেষ্টা করেও নিজেদের কোনো ঐক্যবদ্ধ প্রার্থী দাঁড় করাতে পারেননি বাংলাদেশিরা।
এ নির্বাচনে সিটি মেয়র পদে জয়ী হয়েছেন এরিড এডামস। তিনি হবেন এই সিটির ইতিহাসে দ্বিতীয় কৃষ্ণাঙ্গ মেয়র।
উল্লেখ্য, এবারের সিটি কাউন্সিল নির্বাচনে আরও দক্ষিণ এশীয় বংশোদ্ভূত নারী প্রার্থী ইতিহাস গড়েছেন। তিনি হলেন শেকড় কৃষ্ণাণ। কুইনস এলাকার জ্যাকসন হাইটস ও এলমহার্স্ট নিয়ে গঠিত আসন থেকে জয়ী হয়েছেন তিনি। তবে দক্ষিণ এশীয় বংশোদ্ভূত প্রার্থী ফেলিসিয়া সিং তাঁর রিপাবলিকান প্রতিদ্বন্দ্বীর কাছে হেরে গেছেন।

প্রবাসখবর.কম/বি

প্রবাস খবর
এই বিভাগের আরো খবর