বৃহস্পতিবার   ০৬ মে ২০২১   বৈশাখ ২৩ ১৪২৮   ২৪ রমজান ১৪৪২

প্রবাস খবর
সর্বশেষ:
আপনি কি আপনার প্রবাস জীবনের অভিজ্ঞতা সম্পর্কে লিখতে চান? লেখা [email protected] এ পাঠাতে পারেন।
৪৯৯

নন্দিত চিত্রনায়ক সালমান শাহের ৪৮তম জন্মদিন আজ

প্রকাশিত: ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯  

আজ ১৯ সেপ্টেম্বর নব্বই দশকের বাংলা সিনেমার উজ্জ্বল নক্ষত্র সালমান শাহের ৪৮তম জন্মদিন । বাংলা চলচ্চিত্রের রাজকুমার বলা হয় নায়ক সালমান শাহকে অল্প সময়ে বাংলা ছবির দর্শকদের মন জয় করেছিলেন তিনি। তার প্রতিটি সিনেমা ব্যবসায়িক সাফল্য পেয়েছে। এলেন, অভিনয় করলেন আর মন জয় করলেন এই কথাটি তার জন্য প্রযোজ্য। মাত্র তিন বছরের চলচ্চিত্র ক্যারিয়ারে কাজ করেছেন ২৭টি চলচ্চিত্রে যার প্রায় সবগুলোই ব্যবসা সফল। নব্বই দশকে নক্ষত্রের আগমন ঘটেছিল ধূমকেতুর মত। আবার হঠাৎ করেই সবাইকে ছেড়ে পাড়ি জমান না ফেরার দেশে। কিন্তু মৃত্যুর ২৩ বছর পরেও একটুও কমেনি তার জনপ্রিয়তা। আজও সকল ভক্তদের মনে ঠাঁই পেতে আছেন তিনি।
বাংলা চলচ্চিত্রের সবচেয়ে স্টাইলিশ নায়ক বলা হয় তাকে। অভিনয় আর স্টাইল দিয়ে বাংলা চলচ্চিত্রের প্রেক্ষাপটই বদলে দিয়েছিলেন। তিনি স্টাইলের দিক থেকে এগিয়ে ছিলেন তার সময়ের চেয়েও অনেক বেশি।

১৯ সেপ্টেম্বর এই নন্দিত চিত্রনায়কের ৪৮তম জন্মদিন। তার জন্মদিন উপলক্ষে ঢুলি কমিউনিকেশনস সপ্তাহব্যাপী ‘সালমান শাহ জন্মোৎসব-২০১৯’ কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। জমকালো অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে এই জন্মোৎসবের উদ্বোধন করবেন সময়ের সুপারস্টার নায়ক শাকিব খান। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলক। উৎসব আহ্বায়ক নিপু বড়ুয়া জানান,তারকাসমৃদ্ধ জমকালো উদ্বোধনী ও সমাপনী অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে ২০ সেপ্টেম্বর থেকে ঢাকার মধুমিতা প্রেক্ষাগৃহে সপ্তাহজুড়ে প্রদর্শিত হবে সালমান শাহ অভিনীত ছয়টি সিনেমা। 'কেয়ামত থেকে কেয়ামত', 'তোমাকে চাই', 'মায়ের অধিকার', 'চাওয়া থেকে পাওয়া', 'স্বপ্নের পৃথিবী', 'অন্তরে অন্তরে' ও 'সত্যের মৃত্যু নেই'।

তিনি বেঁচে থাকলে হয়তো আজকের এই দিনটির প্রথম প্রহরের রঙ হতো অন্যরকম। ভক্তরা কেক আর ফুলের তোড়া নিয়ে ভিড় জমাতেন তার বাড়ির সামনে। নিরাপত্তা দিতে ছুটে আসতে হতো হয়তো আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে। কত রাত অবধি ভক্তরা দাঁড়িয়ে থাকতো, সেটার অঙ্ক করে উত্তর দেওয়া যে কঠিন। কারণ তিনি সালমান শাহ।

সালমান শাহের সম্পর্কে কিছু সংক্ষিপ্ত তথ্য ঃ  ( সালমান শাহ ১৯৭১ সালে ১৯ সেপ্টেম্বর বাংলাদেশের সিলেট জেলায় অবস্থিত জকিগঞ্জ উপজেলায় জন্মগ্রহণ করেন, এবং তার রাশি ছিল বৃশ্চিক। তার পিতা কমর উদ্দিন চৌধুরী ও মাতা নীলা চৌধুরী। তিনি পরিবারের বড় ছেলে। যদিও তার জন্মনাম শাহরিয়ার চৌধুরী ইমন, কিন্তু চলচ্চিত্র জীবনে তিনি সবার কাছে সালমান শাহ বলেই পরিচিত ছিলেন। সালমান শাহ ১৯৭১ সালে ১৯ সেপ্টেম্বর বাংলাদেশের সিলেট জেলায় অবস্থিত জকিগঞ্জ উপজেলায় জন্মগ্রহণ করেন, এবং তার রাশি ছিল বৃশ্চিক। তার পিতা কমর উদ্দিন চৌধুরী ও মাতা নীলা চৌধুরী। তিনি পরিবারের বড় ছেলে। যদিও তার জন্মনাম শাহরিয়ার চৌধুরী ইমন, কিন্তু চলচ্চিত্র জীবনে তিনি সবার কাছে সালমান শাহ বলেই পরিচিত ছিলেন। সালমান ১৯৮৫ সালে বিটিভির আকাশ ছোঁয়া নাটক দিয়ে অভিনয়ের যাত্রা শুরু করেন। পরে দেয়াল (১৯৮৫), সব পাখি ঘরে ফিরে (১৯৮৫), সৈকতে সারস (১৯৮৮), নয়ন (১৯৯৫), স্বপ্নের পৃথিবী (১৯৯৬) নাটকে অভিনয় করেন।
নয়ন নাটকটি সে বছর শ্রেষ্ঠ একক নাটক হিসেবে বাচসাস পুরস্কার লাভ করে। এছাড়া তিনি ১৯৯০ সালে মঈনুল আহসান সাবের রচিত উপন্যাস অবলম্বনে নির্মিত পাথর সময় ও ১৯৯৪ সালে ইতিকথা ধারাবাহিক নাটকে অভিনয় করেন।)

প্রবাসখবর.কম/বি

 

প্রবাস খবর
এই বিভাগের আরো খবর