সোমবার   ২৫ অক্টোবর ২০২১   কার্তিক ৯ ১৪২৮   ১৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

প্রবাস খবর
সর্বশেষ:
আপনি কি আপনার প্রবাস জীবনের অভিজ্ঞতা সম্পর্কে লিখতে চান? লেখা [email protected] এ পাঠাতে পারেন।
৩১

গ্রিসের মর্গে পড়ে আছে কয়েছ আলী নামে এক বাংলাদেশির নিথর দেহ

প্রকাশিত: ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২১  

সম্প্রতি তুরস্ক থেকে অবৈধভাবে গ্রিস যাওয়ার পথে ‘সন্ত্রাসীদের আঘাতে’ আহত কয়েছ আলী নামের এক বাংলাদেশি অভিবাসনপ্রত্যাশী চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন।
জানা গেছে, কয়েছ মিয়া সুনামগঞ্জের শান্তিগঞ্জ উপজেলার হলদিকান্দি গ্রামের আহমদ আলীর ছেলে।জানা গেছে, উন্নত জীবনের আশায় প্রিয় স্বদেশ ছেড়ে প্রায় ১০ মাস আগে মধ্যপ্রাচ্যের দেশ ইরানে পাড়ি জমান মা-বাবার একমাত্র সন্তান ৩০ বছর বয়সী কয়েছ আলী।
এদিকে দেশটিতে কিছুদিন থাকার পর ইউরোপের দেশে প্রবেশের উদ্দেশ্যে চলে যান তুরস্ক। এরপর চলতি মাসের শুরুর দিকে তুরস্ক থেকে গ্রিসের পথে পাড়ি জমান কয়েছ।
এ বিষয়ে তার পরিবার জানায়, গ্রিসে অনুপ্রবেশকালে ‘সন্ত্রাসীদের কবলে পড়েন কয়েছ’। তখন তিনি সন্ত্রাসীদের আঘাতে গুরুতর আহত হন। পরে তাকে গ্রিসের একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে প্রায় একমাস চিকিৎসাধীন অবস্থায় গত শুক্রবার রাতে মৃত্যুবরণ করেন।
এদিকে মরদেহ দেশে পাঠানোর জন্য বাংলাদেশ কমিউনিটি ইন গ্রিসের মাধ্যমে সোমবার সকালে গ্রিসে অবস্থিত বাংলাদেশ দূতাবাসে আবেদন পাঠিয়েছে নিহতের পরিবার। কয়েছের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছে বাংলাদেশ কমিউনিটি ইন গ্রিস।
বাংলাদেশ কমিউনিটির নেতারা বলছেন, বাংলাদেশ কমিউনিটি ইন গ্রিসের সহযোগিতায় দূতাবাসের তত্ত্বাবধানে তার মরদেহ দেশে পাঠাতে প্রক্রিয়া চলছে।
এছাড়া এ বিষয়ে গ্রিসে অবস্থিত বাংলাদেশ দূতাবাসের প্রথম সচিব (শ্রম) বিশ্বজিত কুমার পাল এ তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, নিহত কয়েছ আলীর মরদেহ বর্তমানে গ্রিসের একটি হাসপাতালের ম;র্গে আছে। দেশে নেওয়ার জন্য তার পরিবারের পক্ষ থেকে আবেদন করা হয়েছে।
এর মধ্যে মরদেহ দেশে পাঠানোর কার্যক্রমের জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। সকল প্রক্রিয়া সম্পন্ন হলে দেশে পাঠানো হবে।
নিহতের শোক-সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন এবং সবাইকে এ ধরনের অবৈধভাবে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে বিদেশ পাড়ি দেওয়া থেকে বিরত থাকার পরামর্শ দিয়েছেন বাংলাদেশ দূতাবাসের এই কর্মকর্তা।

প্রবাসখবর.কম/বি

প্রবাস খবর
এই বিভাগের আরো খবর