শুক্রবার   ১৮ জুন ২০২১   আষাঢ় ৫ ১৪২৮   ০৮ জ্বিলকদ ১৪৪২

প্রবাস খবর
সর্বশেষ:
আপনি কি আপনার প্রবাস জীবনের অভিজ্ঞতা সম্পর্কে লিখতে চান? লেখা [email protected] এ পাঠাতে পারেন।
৫৯

এবশের মাধ্যমে এক্সিট, রিএন্ট্রি ভিসা লাগাতে পারবেন সৌদি প্রবাসীরা

প্রকাশিত: ৫ মে ২০২১  

সৌদি আরবের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এর এবশের পোর্টাল এর মাধ্যমে প্রবাসী কর্মীদের এক্সিট এবং রিএন্ট্রি এবং ফাইনাল এক্সিট ভিসা ইস্যু করা হচ্ছে। 
যদিও বর্তমানে পরীক্ষামূলকভাবে এই সার্ভিসটি পরিচালনা করা হচ্ছে।
এদিকে জাওয়াজাত ইতিমধ্যেই সৌদি আরবের মানবসম্পদ এবং সামাজিক উন্নয়ন মন্ত্রণালয় এর সাথে মিলে প্রবাসীদের ভিসা ইস্যুর ব্যাপারে ব্যবস্থা নিয়েছেন। অতীতে শুধুমাত্র মালিকপক্ষই কর্মীর এক্সিট-রিএন্ট্রি এবং ফাইনাল এক্সিট ভিসা ইস্যু করতে পারতেন। তবে, গত ১৪ মার্চ থেকে আরোপ হওয়া নতুন শ্রম আইন অনুযায়ী প্রবাসী কর্মী নিজেই এই দুই ভিসা ইস্যু করতে পারবেন।
এছাড়া এবশের পোর্টাল এর মাধ্যমে এক্সিট-রিএন্ট্রি অথবা ফাইনাল এক্সিট ভিসা পাবার জন্য প্রবাসী কর্মীকে এপ্লিকেশন এর মাধ্যমে রিকুয়েস্ট পাঠাতে হবে। এরপরে ১০ দিন অপেক্ষা করতে হবে তাকে। এরপরে তিনি নিজের ভিসা ইস্যু করার জন্য ৫ দিন সময় পাবেন।
যদি ভিসার জন্য আবেদনকৃত কর্মীর বিরুদ্ধে মালিকপক্ষ কোন অভিযোগ জানায়, তবে সেটা মন্ত্রণালয় এর অধীনে খতিয়ে দেখা হবে। ভিসা এপ্লিকেশন জমা দেয়ার পরবর্তী ১০ দিন এর মধ্যে এই অভিযোগের নিস্পত্তি করা হবে বলে জানিয়েছে জাওয়াজাত।

এক্সিট এবং রিএন্ট্রি ভিসা ইস্যুর শর্তাবলী
এপ্লিকেশন করা কর্মীর কমপক্ষে ৩ মাসের ইকামার মেয়াদ থাকতে হবে। এক্সিট এবং রিএন্ট্রি ভিসার মেয়াদ কখনোই ৩০ দিনের বেশি হবে না। ভিসা ইস্যুর সকল খরচ কর্মীকেই বহন করতে হবে। এছাড়াও যদি কর্মী নির্ধারিত সময়ের মধ্যে পুনরায় সৌদি আরবে প্রবেশ করে নিজের কাজে যোগ না দেন, তবে তার চাকুরীর চুক্তি বরখেলাপ হবে।
৭০ বছরের পুরাতন কাফালা প্রথা সংস্কার করে নতুন শ্রম আইন করা হয়েছে। এই শ্রম আইনে প্রবাসী কর্মীরা এবশের এবং কুইয়া পোর্টালের মাধ্যমে নিজেদের সকল ভিসা এবং কাগজপত্র সংক্রান্ত কাজ করতে পারবেন। শুধুমাত্র ৫ সেক্টর বাদে বাকি সকল প্রাইভেট সেক্টর এর প্রবাসী কর্মীরা নতুন শ্রম আইনের আওতায় পড়বেন। এই ৫টি সেক্টর হচ্ছেঃ প্রাইভেট ড্রাইভার, বাড়ির দাররক্ষক, গৃহস্থালি কর্মী, রাখাল, এবং মালী অথবা কৃষক।

প্রবাসখবর.কম/বি
 

প্রবাস খবর
এই বিভাগের আরো খবর